চিকেন পক্স এ আপনার করনীয় – চিকেন পক্স হলে কিভাবে শরীরের যত্ন নিবেন

পোষ্টটি শেয়ার করুন

(Last Updated On: October 10, 2020)

আমি কোন ডাক্তারী পরামর্শ দিবো না। আমি শুধু আমার অভিজ্ঞতা থেকে কিছু টিপস শেয়ার করবো যা দ্বারা আপনি অনেকটা উপকৃত হবেন। তো চলুন শুরু করা যাক।

চিকেন পক্সঃ

মা বলেছে যে, জীবনে নাকি সবার ই একবার এ রোগটি হয়ে থাকে। আমার ও একবার হয়েছে ভাই। বিশ্বাস করেন আর নাই করেন, এতো বিরক্তিকর আর বাজে কোন রোগ পৃথিবীতে আছে কি না আমার ঠিক জানা নাই। তবে আমি শুনেছি এ রোগের তেমন কেfন চিকিৎসা নাই। চিকিৎসা করলে আরো বিপদে পড়তে হয় নাকি । রোগের মতো করে রোগ হয়ে গেলেই ভালো। এই রোগ আপনা আপনিই ভালো হয়ে যায়।  চলুন জানি কিভাবে এ রোগের যন্ত্রনা থেকে বাচা যায়।

চিকেন পক্স এর ধরনসাধারন বর্ননাঃ

সাধারানত এ রোগটি ৭ দিন স্থায়ী হয়। রোগ হওয়ার সময় আপনার জ্বর আসবে এবং রোগ সেরে যাওয়ার সময় আপনার জ্বর আসবে। মাঝখানে জ্বর থাকবে । তবে কিছুটা কম । শরীরে ফোস্কার মতো গুটি গুটি ক্ষত তৈরি হবে। যা কিনা আপনাকে বেশ ভালোই যন্ত্রনা দেবে । 🙁

কিভাবে আপনি কিছুটা যন্ত্রনামুক্ত থাকতে পারবেন?

আপনার শরীরে ৫-১০ টা গুটি দেখা মাত্রই আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনি পক্সে আক্রান্ত হতে চলেছেন। টক খেলে আপনার শরীরের গুটিগুলো তাড়াতাড়ি বের হয়ে যাবে। তার জন্যে আমার আম্মা আমাকে টক বড়ই’র রস খায়িয়ে দিয়েছেন। পরের দিন সকালে ওঠে দেখি সাড়া শরীর এ গুটিতে ভড়ে গেছে রে !

অনেকে, অনেক ধরনের কথা বলতে পারে। কিন্তু আপনি সাবধান থাকবেন। কারো কোন কথায় কান দিবেন না। বেশি কাহিনী করবেন তো মরবেন। আমি আমার অভিজ্ঞতা থেকে কিছু টিপস শেয়ার করছি যা দ্বারাই আপনি সুস্থ থাকতে পারবেন।

গুটি দেখা মাত্র আপনি প্রচুর পরিমান পানি পান করবেন। কারন চিকেন পক্স এ শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দেয়। মোটামোটি দুই দিন ধরে আপনার গুটি বের হবে যদি আপনি টক বড়ই’র রস খেতে পারেন তবে তাড়াতাড়ি বের হবে।গুটি বের হওয়া শেষ হলে আপনার প্রচন্ড যন্ত্রনা অনুভুত হতে পারে। কিন্তু খবরদার, গুটিতে ঘসাঘসি করলে আপনার ক্ষত বৃদ্বি পাবে। যন্ত্রনা হলেও আপনি গুটিকে গুটির মতো থাকতে দিন।

যখন দেখবেন যে আপনার গুটিগুলো কালো বর্ন ধারন করছে তখন কোন একটা কিছু দিয়ে খোচা দিয়ে আস্তে করে পানি গুলো বের করে দেবেন। তবে অবশ্যই আপনার গুটিগুলো কালোবর্ন ধারন করার পরে এটি করবেন।
এতে করে আপনার শরীর কম চুলকাবে। আর যে গুটিগুলো আপনি পানি বের করে দিবেন সে গুটিগুলো শুকিয়ে যাবে। এ সময় আপনার অনেক চুলকানি হবে। কিন্তু আপনি চুলকাবেন না।

সে জন্য আপনি Alatrol ট্যাবলৈট খাবেন যেন আপনার চুলকানি কম হয় । ব্যাস এটি ই চিকিৎসা। ৫ দিন অতিবাহিত হলে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার গুটিগুলো শুকিয়ে আসছে।

যখন আপনি পুরুপুরি সুস্থ অনুভব করবেন তখন আপনি গোসল করার জন্য প্রস্তুত। আমার মা শরীরে কি যেন একটা মেখে দিয়েছিলো গোসল করানোর আগে। আপনাদের সুবিধার্থে লিখে দিলাম।

  1. তিল বাটা
  2. কাঁচা হলুদ
  3. নিম পাতা

এইতিনটি ভালো করে বেটে শরীরে গোসলের আগে প্রলেপ দিলে শরীরটি জীবানুমুক্ত হবে। উপকার ও পাবেন।
ব্যাস। এইবার শুধু দাগ নিয়ে চিন্তা। কিন্তু চিন্তার কিছু নাই। আপনি বাজার থেকে তিল এর তেল কিনে আনবেন। সকাল বিকাল তিলের তেল সাড়া শরীর মালিশ করলে দাগ এর গুষ্ঠি ও থাকবেনা। গ্যারান্টি দিচ্ছি।

মনে রাখবেন যে, নখ দ্বারা গুটি কে কোন ভাবেই চুলকানো যাবে না । বিশেষ করে কাচা অবস্থায়। তাহলে দাগ অনেক গভীরে চলে যাবে। যা কখনো নাও ওঠতে পারে।

চলুন সারসংক্ষেপ আবার জানি।

চিকেন পক্স হলে করনীয়ঃ

১। প্রচুর পানি পান করতে হবে।
২। প্রথমত টক বড়ই (অলবড়ই) এর রস খেতে হবে (আমার মা আমায় খেতে দিয়েছিলো। এটা কেনো ডাক্তারী পরামর্শ নয়)।
৩। হাতে দ্বারা গুটিকে কাচা অবস্থায় চুলকানো যাবে না।
৪। গুটি ২ দিন পর কালোবর্ন ধারন করার পর কোন কিছু দিয়ে খোচা দিয়ে পানি গুলো বের করে তা টুকরা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলতে হবে।
৫। Alatrol ট্যাবলেট খেতে হবে, চুলকানি হলে তা থেকে বাচার জন্য।
৬। ঘা শুকিয়ে গেলে তিলবাটা, কাঁচা হলুদ, নিম পাতা বেটে শরীরে প্রলেপ দিতে হবে। তার পর গোসল করে ফেলতে হবে।
৭। এইবার থেকে তিলের তেল নিয়মিত কয়েকদিন ব্যবহার করেতে হবে। এতে দাগগুলো চলে যাবে।

সবাই সুস্থ থাকুন। বাইচান্স পক্স হয়ে গেলে উপরের নিয়মগুলো একটু ফলো করুন। কষ্ঠ কিছুটা হলেও কম হবে।

4.5/5 - (93 votes)